Tag Archives: বেল

হৃদযন্ত্রের দুর্বলতায় বেল

হৃদযন্ত্রের দুর্বলতায় ৩০-৩৫ গ্রাম পাকা বেলের শাঁস প্রতিবারে ১ গ্লাস পানিতে শরবত তৈরী করে দিনে ২ বার সেবন করতে হবে । সেবনবিধিঃ বেলের শাঁসঃ ৩০-৩৫ গ্রাম। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in হৃদরোগ | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

সর্দিজ্বরে বেলপাতার কার্যকারিতা

৩-৪ চা চামচ বেলপাতার নির্যাস ৬ ঘন্টা পর পর সেবন করলে সর্দি ও সর্দিজ্বর ভাল হয়ে যায় । সেবনবিধিঃ বেল পাতার নির্যাসঃ ৩-৫ চা চামচ। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in সর্দিজ্বর | Tagged , , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

শোথ প্রতিরোধে বেল

শোথ প্রতিরোধে বেল গোলমরিচসহ সেবন করলে শোথ (হাত পায়ে পানি আসা) ভাল হয়ে যায় । সেবনবিধিঃ প্রয়োজনমত গোলমরিচ ও বেল। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in শোথ | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

শুক্রতারল্যের উপশমে বেল

শুক্রতারল্যে বেল গাছের শিকড়ের ছাল চূর্ণ গাওয়া ঘি অথবা মধুর সাথে মিশিয়ে দিনে ২ বার সেবন করতে হবে । সেবনবিধিঃ শিকড়ের ছালচূর্ণঃ ২-৩ গ্রাম সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in গোপন রোগ | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

রক্তে সুগার কমাতে বেল

বেল গাছের মূলের ছালের রস রক্তের সুগার কমায় । সেবনবিধিঃ মূলের ছালের রসঃ প্রয়োজনমত সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in রক্ত | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

অর্শের রক্ত বন্ধকরণে বেল

রক্ত অর্শে কাঁচা বেলের শাঁস পুড়িয়ে টক দধির ঘোলে মিশিয়ে নিয়মিত সেবনে অর্শের রক্ত বন্ধ হয়ে যায়। সেবনবিধিঃ বেলের শাঁসঃ ৩০-৩৫ গ্রাম। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in অর্শ রোগ | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

মস্তিকের দুর্বলতায় বেলের উপকারিতা

মস্তিকের দুর্বলতায় ৩০-৩৫ গ্রাম পাকা বেলের শাঁস প্রতিবারে ১ গ্লাস পানিতে শরবত তৈরী করে দিনে ২ বার সেবন করতে হবে । সেবনবিধিঃ বেলের শাঁসঃ ৩০-৩৫ গ্রাম। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in মস্তিষ্কের দূর্বলতায় | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

পাকস্থলীর দুর্বলতায় বেলের ভূমিকা

পাকস্থলীর দুর্বলতায় ৩০-৩৫ গ্রাম পাকা বেলের শাঁস প্রতিবারে ১ গ্লাস পানিতে শরবত তৈরী করে দিনে ২ বার সেবন করতে হবে । সেবনবিধিঃ বেলের শাঁসঃ ৩০-৩৫ গ্রাম। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in পাকস্থলীর দুর্বলতা | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

জন্ডিস প্রতিরোধে বেল

জন্ডিস প্রতিরোধে বেল গোলমরিচসহ সেবন করলে জন্ডিস ভাল হয়ে যায় । সেবনবিধিঃ বেল ও গোলমরিচ প্রয়োজনমত। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন নেই।

Posted in জন্ডিস | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

কোষ্ঠকাঠিণ্যে বেলের উপকারীতা

কোষ্ঠকাঠিণ্যে ৩০-৩৫ গ্রাম পাকা বেলের শাঁস প্রতিবারে ১ গ্লাস পানিতে শরবত তৈরী করে দিনে ২ বার সেবন করতে হবে। এভাবে কমপক্ষে ৫-১০ দিন সেবন করলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়ে যাবে । সেবনবিধিঃ বেলের শাঁসঃ ৩০-৩৫ গ্রাম। সতর্কতাঃ তেমন কোন সতর্কতার প্রয়োজন … বিস্তারিত পড়ুন

Posted in কোষ্ঠকাঠিন্য | Tagged , | এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান